যাতে যায় শমন যন্ত্রণা ভ্রমে ভুলো না

যাতে যায় শমন যন্ত্রণা ভ্রমে ভুলো না যাতে যায় শমন যন্ত্রণা ভ্রমে ভুলো না গুরুর শীতল চরণ ভুলো না ।। বেদ বৈদিকের ভোলে ভুলি গুরু ছেড়ে গৌর বলি মনের ভ্রম এ সকলি শেষে যাবে রে জানা ।। চৈতন্য আজব সুরে থেকে নিকট দেখায় দূরে গুরুরূপ আশ্রিত করে কর রূপের ঠিকানা ।। জগৎ জীবের দ্বারায় নিজরূপ […]

যাক না মন একান্ত হয়ে গুরু গোঁসাইয়ের রাগ লয়ে ।।

যাক না মন একান্ত হয়ে যাক না মন একান্ত হয়ে গুরু গোঁসাইয়ের রাগ লয়ে ।। চাতকের প্রাণ যদি যায় তবু কি অন্য জল খায় উর্ধ্বমুখ থাকে সদায় নবঘন জল চেয়ে তেমনি মতো হলে সাধন সিদ্ধি হবে এই দেহে ।। এক নিরিখ দেখো ধণী সূর্য্যগত কমলিনী দিনে বিকশিত তেমনি নিশীথে মুদিত তেমনি জেনো ভক্তের লক্ষণ একরূপে […]

যারে ভাবলে পাপীর পাপ হরে দিবানিশি ডাক মন তারে ।।

যারে ভাবলে পাপীর পাপ হরে যারে ভাবলে পাপীর পাপ হরে দিবানিশি ডাক মন তারে ।। গুরুর নাম সুধাসিন্ধু পান কর তাহাতে বিন্দু সখা হবে দীনবন্ধু তৃষ্ণা ক্ষুধা রবে না রে ।। যে নাম প্রহ্লাদ হৃদয় করে অগ্নির কুন্ডে প্রবেশ করে কৃষ্ণ নরসিংহ রূপ ধারণ করে হিরণ্যকশিপুরে মারে ।। ভাবলি না শেষের ভাবনা মহাজনের ধন ষোলআনা […]

যদি তরিতে বাসন থাকে ধর রে মন সাধুর সঙ্গ ।।

ভজ রে আনন্দের গৌরাঙ্গ ভজ রে আনন্দের গৌরাঙ্গ যদি তরিতে বাসন থাকে ধর রে মন সাধুর সঙ্গ ।। সাধুর গুন যায়না বলা শুদ্ধ চিত্ত অন্তর খোলা সাধুর দরশনে যায় মনের ময়লা পরশে প্রেমতরঙ্গ ।। সাধুজনার প্রেম হিল্লোলে কত মানিক মুক্তা ফলে সাধু যারে কৃপা করে প্রেমময় দেয় প্রেমানঙ্গ ।। একরসে হয় প্রতিবাদী একরসে ঘুরছে নদী […]